রাজনৈতিক দূরত্বের পর বাড়ল প্রশাসনিক দূরত্ব।তবে কি তৃণমূলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করছেন শুভেন্দু?

এইচআরবিসির চেয়ারম্যানের পদ ছাড়লেন শুভেন্দু। হুগলি রিভার ব্রিজ কমিশনের নতুন চেয়ারম্যান কল্যাণ। কেন ইস্তফা? এখনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি শুভেন্দুর

চরম পদক্ষেপ,গুরুত্বপূর্ণ পদ ছাড়লেন শুভেন্দু অধিকারী! কিন্তু কেন?

দলের বিরুদ্ধে ঘুরিয়ে বিভিন্ন বক্তব্য রেখে ছিলেন। এতদিন পর্যন্ত কোনও পদ ছাড়েননি শুভেন্দু অধিকারী। বরং রামনগরের সভা থেকে বলেছিলেন, 'মুখ্যমন্ত্রী আমাকে তাড়াননি, আমিও কোথাও যাইনি', এমনকী তাঁর সঙ্গে কয়েক দফা বৈঠকের পর প্রবীণ তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়েরও মন্তব্য ছিল, 'শুভেন্দু দলেই আছে।এক সঙ্গে মিলে লড়াই করব।' কিন্তু সেই সব মন্তব্যের মাঝেই ফের শোরগোল ফেলে দিলেন শুভেন্দু। হুগলি নদী ব্রিজ কমিশনারের চেয়ারম্যান পদ ছাড়লেন শুভেন্দু অধিকারী। আর এরপরই জল্পনা আরও বাড়ল। তাহলে কি এবার দল ছাড়ার ইঙ্গিত দিলেন রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী? তাঁর জায়গায় এলেন শ্রীরামপুরের সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

উল্লেখ্য, শুভেন্দু অধিকারীর আগে ওই পদে ছিলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। পরিবহণমন্ত্রী হওয়ার পর শুভেন্দুকে এইচআরবিসি-র চেয়ারম্যান করা হয়। স্বাভাবিকভাবে প্রশ্ন উঠছে, আচমকা শুভেন্দু কেন ইস্তফা দিলেন? এনিয়ে এখনও স্পষ্ট কিছু জানা যায়নি। 


Comment As:

Comment (0)